রাশিয়াতে ফিরবেন বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত পুতিনবিরোধী নাভালনি

বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত রাশিয়ার বিরোধী নেতা আলেক্সাই নাভালনি নিজ দেশে ফিরে যাবেন বলে জানিয়েছেন তার মুখপাত্র কিরা ইয়ারমাস। মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘অন্যরা কেনও অন্য কোনও কিছু ভাবছে তা নিয়ে আমি বিস্মিত।’ একই দিন বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো নিজের ছবি ইন্সটাগ্রামে প্রকাশ করেছেন নাভালনি। জার্মানিতে চিকিৎসাধীন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনে কট্টর এই সমালোচক ওই পোস্টে জানিয়েছেন, বর্তমানে তিনি ভেন্টিলেশন ছাড়াই শ্বাসপ্রশ্বাস নিতে পারছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত ২০ আগস্ট সকালে একটি ফ্লাইটে সাইবেরিয়ার টমস্ক থেকে মস্কোয় ফেরার সময়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন আলেক্সাই নাভালনি। পরে বিমানটিকে জরুরি ভিত্তিতে সাইবেরিয়ার ওমস্কে অবতরণ করিয়ে তাকে সেখানকার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তিনি কোমায় চলে যান। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় বার্লিনের চ্যারিতে হাসপাতালে। গত সপ্তাহে তিনি সাড়া দিতে শুরু করেন। তার ঘনিষ্ঠদের অভিযোগ রুশ প্রেসিডেন্টের নির্দেশে তাকে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে।

পরীক্ষাতে নাভালনির শরীরে নোভিচক নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগের প্রমাণ মেলার পর রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে একজোট হয়েছেন পশ্চিমা নেতারা। যুক্তরাজ্য ও জার্মানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, হত্যাচেষ্টার স্পষ্ট প্রমাণ মেলার পর এবার রাশিয়াকেই এর জবাব দিতে হবে। মস্কো এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসলেও সম্প্রতি জার্মানিতে তদন্ত দল পাঠানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক টুইট বার্তায় কিরা ইয়ারমাস লিখেছেন, ‘সকালের সব সাংবাদিক আমার কাছে জানতে চাইছে যে, এটা কি সত্যি যে আলেক্সাই রাশিয়াতে ফেরার পরিকল্পনা করছেন? আবারও আমি সবাইকে নিশ্চিত করছি: অন্য কোনও বিকল্প এখন পর্যন্ত বিবেচনায় আনা হয়নি।’

মুখপাত্র কিরা ইয়ারমাসের ওই ঘোষণার কিছুক্ষণ আগে ইন্সটাগ্রামে নিজের ছবি প্রকাশ করেন আলেক্সাই নাভালনি। সেখানে তিনি লেখেন, ‘হায়, আমি নাভালনি। আপনাদের মিস করছি। এখনও বেশি কিছু পারছি না তবে গতকাল পুরোটা দিন আমি নিজেই শ্বাস নিতে পেরেছি। কেবলই নিজে নিজে, কোনও অতিরিক্ত সাহায্য না, এমনকি গলায় কোনও ভাল্বও ছিলো না। খুবই ভালো লেগেছে। এটা অবিস্মরণীয় একটি প্রক্রিয়া যা অনেকেই অবহেলা করেছিলেন। সবার প্রার্থনা কামনা করছি।’

সর্বশেষ সংবাদ